1. admin@pratibaderkantho.com : admin :
  2. badhsa85ja@gmail.com : badhsa :
  3. tvtista2@gmail.com : manik :
ফুলবাড়ীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র আশুরা পালিত - প্রতিবাদের কন্ঠ
শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
বাঘায় মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখায় ৩ ফার্মেসীর মালিককে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলা বাসীদের সচেতন করতে পথে,পথে ঘুরছে ফিরছে হরিণাকুণ্ডুর এসিল্যান্ড জলঢাকায় শীতার্ত মানুষের পাশে ব্যারিষ্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশন জলঢাকায় গৃহহীন ১৫০টি পরিবারের ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন। বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন তোফা’র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন নীলফামারীতে ট্রেনে কাটা পড়ে ইপিজেডের ৪ মহিলা শ্রমিক নিহত,আহত-৫ জলঢাকায় সমলয় পদ্ধতিতে যান্ত্রিক ভাবে বোরো রোপনের উদ্ধোধন ! বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন তোফা’র মৃত্যুতে – উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনের শোক ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার বীর মুক্তযোদ্ধার রাষ্টীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন ডোমারে চারশত শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

ফুলবাড়ীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র আশুরা পালিত

মাহফুজ,ফুলবাড়ী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি:
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৫

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র আশুরা পালিত হয়েছে।

২০ আগষ্ট শুক্রবার দিবসটি উদযাপনের লক্ষ্যে উপজেলার অধিকাংশ মসজিদের মুসল্লীদের উদ্যোগে পবিত্র জুম্মার নামাজ আদায় শেষে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে দোয়া মাহফিল ও তবারক বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবারে আশুরা পালিত হওয়ায় মসজিদের ঈমাম ও খতিবগণ দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে মসজিদে বয়ান পেশ করেন। আর দিবসটি পালনের লক্ষ্যে প্রতিটি মসজিদে বিপুল সংখ্যক মুসল্লীর উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন মসজিদে বাদ আসর, বাদ মাগরিব ও বাদ এশা আশুরা উপলক্ষে জিয়ারত, দোয়া মাহফিল ও তবারক বিতরণ করা হবে বলেও জানা গেছে।

মসজিদে জুম্মার বয়ানে মসজিদের ইমাম ও খতিবগন আশুরার গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরেন।

ইসলামি পরিভাষায় মহররমের ১০ তারিখকে ‘আশুরা’ বলে। সৃষ্টির শুরু থেকে এ দিনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা সংঘটিত হয়েছে।

হিজরি ৬১ সালের এদিনে ফোরাত নদীর তীরে কারবালার প্রান্তরে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র ইমাম হোসাইন (রা.) ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা শহীদ হয়েছিলেন। সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য তাঁদের এই আত্মত্যাগ মানবতার ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে আছে।

কারবালা প্রান্তরের ১০ মহররমের হৃদয় বিদারক ঘটনার বয়ানে উপস্থিত মুসল্লীগন আপ্লূত হয়ে পড়েন।

কুরআন ও হাদিসের বর্ণনা মতে, এ দিনে মহান আল্লাহ তায়ালা প্রাণিকুল, আসমান-জমিন সৃষ্টি করেছেন। আবার এদিনেই তামাম মাখলুকাত ধ্বংসও হবে।

 

পৃথিবীতে নির্বাসনের পর এ দিনেই হজরত আদম (আ.) আরাফাত ময়দানে হজরত মা হাওয়ার সঙ্গে মিলিত হন। হজরত মুসা (আ.) ফেরাউনের জুলুম থেকে এই দিনে পরিত্রাণ লাভ করেছিলেন তার অনুসারীদের নিয়ে নীল নদ পার হয়ে। হজরত নূহ (আ.) সদলবলে মহা প্লাবন শেষে যুদী পাহাড়ে অবতরণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
error: Content is protected !!