1. admin@pratibaderkantho.com : admin :
  2. badhsa85ja@gmail.com : badhsa :
  3. editor@pratibaderkantho.com : editor :
বঙ্গবন্ধু কাবাডিতে আবারো চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ - প্রতিবাদের কন্ঠ
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০:৪১ অপরাহ্ন

বঙ্গবন্ধু কাবাডিতে আবারো চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

অনলাইন
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ২৫ মার্চ, ২০২২
  • ২৩

ঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কাবাডিতে আবারো চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। গতকাল শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালে কেনিয়াকে বাংলাদেশ ৩৪-৩১ পয়েন্টের ব্যবধানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জিতে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। গত আসরেও বাংলাদেশ কেনিয়াকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।
যদিও শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়ামে কেনিয়ার শুরুটা হয়েছিল দারুণ আশা জাগানিয়া। তাতে শঙ্কার কালো মেঘ জমে বাংলাদেশের আকাশে। কিন্তু দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ান আরদুজ্জামান-রাজীবরা। শঙ্কার মেঘ সরিয়ে বঙ্গবন্ধু কাপ ইন্টারন্যাশনাল কাবাডির মুকুট ধরে রাখার

আলোয় ভাসলো বাংলাদেশ। খেলা শেষের বাঁশি বাজতেই সাউন্ড বক্সে বেজে ওঠে ‘জয় বাংলা, বাংলার জয়।’ আর লাল- সবুজ পতাকা হাতে নিয়ে কাবাডি ম্যাটের চারপাশে ল্যাপ অব অনার দিতে থাকে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা। ‘বাংলাদেশ, বাংলাদেশ’ স্ল্লোগানে তখন মুখরিত শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়ামের গ্যালারি। দু’দিন পর স্বাধীনতা দিবস। তার আগেই কাবাডির হাত ধরে আসল আরেকটি বিজয়। দ্বিতীয় বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডিতে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ।

এদিন লড়াইটা ছিল বাংলাদেশের টেকনিক আর কেনিয়ার পাওয়ারের। শারীরিক শক্তি এবং উচ্চতায় এগিয়ে থাকায় কেনিয়ার খেলোয়াড়দের আটকাতে গিয়ে বারবার খেই হারিয়ে ফেলছিলেন তুহিন-রাজীবরা। আবার পয়েন্ট ছিনিয়ে আনতে গিয়ে নিজেদের কোর্টে আসতে পারেননি প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত ডিফেন্সের কারণে। যে কারণে পাওয়ারফুল কেনিয়াকে থামানোর জন্য কৌশলে পরিবর্তন আনেন ভারতীয় কোচ সাজুরাম। প্রতিপক্ষকে আটকানোর ঝুঁকিতে না গিয়ে পয়েন্ট আনায় মনোযোগ দেয় স্বাগতিকরা। তাতে সফলও হয়। শুরুতে বেশকিছু সময় ধরে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ প্রথমার্ধের শেষদিকে গিয়ে ছন্দে ফেরে। তুহিন তরফদার লিড এনে দেন। বিরতির পর শুরুতে ভুল করেন ফেরদৌস।

প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে আটকাতে গিয়ে পয়েন্ট উপহার দেন। এক পর্যায়ে রাজীব ও সবুজ আউট হলে লিড নেয়া কেনিয়ার পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়ায় ১৮-১৭। তিনজনে পরিণত হওয়া বাংলাদেশের অলআউটের শঙ্কা জাগে। পরক্ষণেই কেনিয়ার ভিক্টরকে আউট করলে সমতা আনে লাল- সবুজের দলটি। কিন্তু মুনিরুলের ভুলে আবারও লিড নেয় আফ্রিকান দেশটি। পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান রাজীব আহমেদ। একাই কেনিয়ার দুই প্লেয়ারকে আউট করে মূল্যবান দুই পয়েন্ট এনে দিলে জেগে ওঠে গ্যালারি। এটাই ছিল মূলত: ম্যাচের অন্যতম টার্নিং পয়েন্ট। দারুণ খেলতে থাকা স্বাগতিকরা ব্যবধান নিয়ে যায় কেনিয়ার ধরাছোঁয়ার বাইরে (২৯-২১)। একে একে কেনিয়ার ওদিয়াম্বো, নামাবকে আউট করলে পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়ায়

৩০-২৩। এমন অবস্থায় বাংলাদেশের জয়টি সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছিল। কিন্তু বারবার ভুল করেন তুহিন-মুন্সীরা। তাতে পয়েন্টের ব্যবধান কমিয়ে আনে কেনিয়া (৩২-৩১)। ম্যাচের শেষ মিনিটে কেনিয়ার নাম্বার ওয়ান ভিক্টর ভুল করলে দুই পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশ শিরোপা জয়ের আনন্দে মেতে ওঠে ৩৪-৩১ পয়েন্টের ব্যবধানে।
উল্লেখ্য, সেমি-ফাইনালে ইরাককে ৫৫-৩৬ পয়েন্টে হারায় বাংলাদেশ। গ্রুপপর্বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখোমুখি হয়েছিল দলের খেলোয়াড়রা। তবে জমজমাট লড়াইয়ের পর ৪০-৩৮ পয়েন্টে জিতে ‘এ’ গ্রুপের সেরা হয় স্বাগতিকরা। ইংল্যান্ডকে ৪৬-১৫ পয়েন্টে হারিয়ে মুকুট ধরে রাখার মিশন শুরু করে বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে জিতেছিল ৫৬-২১ পয়েন্টে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
error: Content is protected !!