1. admin@pratibaderkantho.com : admin :
  2. badhsa85ja@gmail.com : badhsa :
  3. editor@pratibaderkantho.com : editor :
আগাম নির্বাচন হবে পাকিস্তানে! - প্রতিবাদের কন্ঠ
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০:০৪ অপরাহ্ন

আগাম নির্বাচন হবে পাকিস্তানে!

অনলাইন
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ২৫ মার্চ, ২০২২
  • ২১

পাকিস্তানে কী আগাম নির্বাচন হবে! স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদের বৃহস্পতিবারের বক্তব্যের পর এই আলোচনা জোরালো হয়েছে। তিনি ক্ষমতাসীন পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) দলের সদস্যদের উদ্দেশে বলেছেন, যারা দলের বাইরে ভোট দিতে চায়, তারা কাজটা ভাল করছে না। রং বদলানো এসব সদস্যকে স্মরণ রাখতেই হবে যে, দেশে আগাম নির্বাচন আহ্বান করা হতে পারে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। রাজধানী ইসলামাবাদে তিনি সংবাদ সম্মেলনে এসব মন্তব্য করেন।

আগামীকাল শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে পাকিস্তানে যে অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর ভোট হওয়ার কথা, সে বিষয়ে বক্তব্য রাখছিলেন শেখ রশিদ আহমেদ। তিনি বলেন, যারা দল পরিবর্তন করছেন এবং মনে করছেন এর ফলে তারা সম্মান পাবেন। আসলে তারা ভুল ধারণা পোষণ করছেন।

এখান থেকে দেশের জন্য সুসংবাদ আসতে পারে। তিনি আরও বলেন, মিত্ররা সাধারণত সিদ্ধান্ত নিতে অনেক সময় নেয়। যারা গণতন্ত্র ও দলের প্রতি অনুগত থাকেন, তারা স্থির অবস্থানে থাকেন। এ সময় তিনি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদেরকে তাদের সিদ্ধান্তে অটল থাকতে বলেন। ‘কারণ, এটা তাদের নৈতিক, সাংবিধানিক ও ইসলামিক দায়িত্ব।’

শেখ রশিদ আহমেদ বলেন, দায়িত্ব নিয়ে আপনাদের বলছি কেউ কোথাও চলে যাচ্ছেন না। এ সময় তিনি পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী উসমান বুজদারের সঙ্গে তার সাক্ষাতের কথা তুলে ধরেন। বলেন, তিনি ইমরান খানের পক্ষে শক্ত অবস্থান নেবেন। তিনি পদ ছেড়ে অন্য কোথাও যাচ্ছেন না। পিটিআইয়ের যেসব এমপি বেঁকে বসেছেন, তাদের নেতৃত্বে আছেন জাহাঙ্গীর তারিন। তাদের যেসব দাবি রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হলো পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীকে পদ থেকে সরিয়ে দিতে হবে।ওদিকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু আলিম খানও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি জাহাঙ্গীর তারিনের গ্রুপে যোগ দিচ্ছেন। তিনি কেন্দ্রে ইমরান খানের সরকার এবং পাঞ্জাবে উসমান বুজদারের সরকার প্রতিশ্রুতি রাখতে পুরোপুরি ব্যর্থ বলে অভিযোগ করেছেন। বলেছেন, তারা প্রতিশ্রুতি পাল্টে ফেলেছেন। শুক্রবারের অনাস্থা ভোট সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিরোধী দলীয় কিছু সদস্য ভোটের দিন পার্লামেন্টে যাবেন না। তারা মনে করেন ইমরান খান তার ক্ষমতার মেয়াদ পুরা করুন এটাই উত্তম। না হয় আগাম নির্বাচন। বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বিরোধীদেরকে পরিস্থিতি সম্পর্কে ভাবতে হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কাউকেই পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হচ্ছে না বা কেউই পদ থেকে পদত্যাগ করছেন না। এ সময় তিনি আরও বলেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেনাবাহিনীর সম্মান ধ্বংস করছে যারা তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে তিনি ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির পরিচালক জেনারেল ড. সানাউল্লাহ আব্বাসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। পার্লামেন্টে কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে শেখ রশিদ বলেন, কখন অনাস্থা প্রস্তাবে ভোট হবে সে সিদ্ধান্ত জাতীয় পরিষদের স্পিকারের। বিরোধীরা ইমরান খানের ক্ষমতার মেয়াদের শেষ বছরে এসে তাকে ‘হিরো’ বানানোর চেষ্টা করছেন। ‘আমরা মুদ্রাস্ফীতি, বেকারত্বের বিরুদ্ধে লড়াই করছি। জনগণ এসব বিষয় এখন ভুলে গিয়েছে এবং তারা ইমরান খানের সঙ্গে আছে। ’

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
error: Content is protected !!