1. admin@pratibaderkantho.com : admin :
  2. badhsa85ja@gmail.com : badhsa :
  3. editor@pratibaderkantho.com : editor :
ডিমলায় ভূমিহীন অসহায় গরীব দুঃখী মানুষজনের স্বপ্ন পূরণ - প্রতিবাদের কন্ঠ
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৯:৫৭ অপরাহ্ন

ডিমলায় ভূমিহীন অসহায় গরীব দুঃখী মানুষজনের স্বপ্ন পূরণ

জাহাঙ্গীর রেজা, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশকাল : বুধবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৮

এক টুকরো মাথা গোঁজার ঠাই, এক চিলতে স্বপ্ন, ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়-বিশেষন যাই হোক উপকারভোগীদের কাছে এই প্রাপ্তি শুধুই আনন্দের। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতার শেষ নেই তাদের। কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষাও হয়ত নেই, আছে শুধু চোখের কোনে চিক চিক করা আনন্দাশ্রু। ডিমলা উপজেলার ৩২৩ জন উপকারভোগী আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে জমির মালিকানার দলিলসহ একক গৃহ বুঝে পেলেন। এ যেন ঈদের আগেই ঈদ উপহার! তাও স্বয়ং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মমতাময়ী হাত হতে। এ আনন্দ শুধু উপকারভোগীদের নয়, আমরা যারা এ বিরাট কর্মযজ্ঞে জড়িত ছিলাম সকলের।

 

 

ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই মাননীয় সংসদ সদস্য মহোদয়, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মহোদয়, জেলা প্রশাসক মহোদয়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহোদয়, ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয়, বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণ, উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিগণ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীগণকে, যাদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি অনুষ্ঠানটিকে বর্ণিল করেছে।

নিজের একনা জমি, থাকিবার পাকা ঘর ইইবে; মুই কোনো দিন স্বপ্নেও ভাবির পাওনাই। শেখ সাহেবের বেটি আইজ মোক একখণ্ড জমি, এককান থাকিবার বাড়ি দেইল। শেখ সাহেবের বেটিক বাঁচিয়া না থাকিলে সারা জীবন বৌ-ছাওয়াক নিয়া মোক রাস্তাত পরি থাকি লাগিতো’।

ঈদের আগেই প্রধানমন্ত্রী দেওয়া উপহার জমি আর নতুন বাড়িসহ স্থায়ী ঠিকানা পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে এসব কথা বলেন নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার ভূমিহীন কায়েকী শ্রমিক অফিজ উদ্দিন (৫০)।
শুধু আফিজ উদ্দিনই নন, তার মতো নীলফামারী জেলায় এক হাজার ২০৫টি ভূমি ও গৃহহীন এবং ছিন্নমূল পরিবার ঈদের স্থায়ী ঠিকানা পেয়েছেন।
মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সকালে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এসব পরিবারের হাতে ঘরের মালিকানাসহ দলিল তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাও বিনিময় করেন তিনি।

অফিজ উদ্দিন বলেন, নিজের কোনো জমি, বাড়ি নেই। এখন দিন মজুরি করলেও পরিবার নিয়ে নিজের বাড়িতে থাকতে পারবো।

এদিকে সকালে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর পরই নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার সদর ইউনিয়নে-১৪৮,খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নে -৭৫,ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নে-১০০ পরিবারের মধ্যে আশ্রয়ণ প্রকল্পে তৃতীয় পর্যায়ে জমিসহ বাড়ির দলিল হস্তান্তর করে জেলা প্রশাসন।

নীলফামারীর ডিমলায় বাড়ির দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন এর সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ হলরুমে নীলফামারী-১ (ডোমার-ডিমলা) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আফতাব উদ্দিন সরকার, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক/রাজস্ব) মোঃ ইব্রাহিম খান, নীলফামারী জেলা প্রশাসক ইয়াসির আরেফিন, ডিমলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ইবনুল আবেদীন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ৷

 

উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নীরেন্দ্রনাথ রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়শা সিদ্দীকা, জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফেরদৌস পারভেজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান, ত্রাণ শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম, ও উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান, সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম সরকারসহ সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
error: Content is protected !!