1. admin@pratibaderkantho.com : admin :
  2. badhsa85ja@gmail.com : badhsa :
  3. editor@pratibaderkantho.com : editor :
ইটস হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার পেয়ে খুশি সুবিধাভোগীরা - প্রতিবাদের কন্ঠ
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন

ইটস হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার পেয়ে খুশি সুবিধাভোগীরা

জয়নাল আবেদীন হিরো নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি :
  • প্রকাশকাল : রবিবার, ১ মে, ২০২২
  • ১৮

নীলফামারীর সৈয়দপুরে হতদরিদ্র ও প্রতিবন্ধিদের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে হুইল চেয়ার, সেলাইমেশিন, রিকশা ও ভ্যান বিতরণ করা হয়েছে। রোববার (১ মে) বিকেল ৪টার দিকে আল-ফারুক একাডেমি প্রাঙ্গণে ইটস হিউম্যিানিটি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এসব বিতরণ করা হয়।

 

 

এতে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলার চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখছেদুল মোমিন। প্রতিষ্টানের চেয়ারম্যান আদনান হোসেনের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহসিনুল হক, প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা সাহিদ আকতার, আরমান আহমেদ, সৈয়দপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম টিটো, সাবেক ছাত্র নেতা ইমরান তৌহিদী প্রমূখ।
সৈয়দপুর উপজেলার কুন্দল এলাকার জাহিদুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ মুকুল। বৃদ্ধ বাবা-মা ও স্ত্রী সন্তান নিয়ে মোট ৬জনের পরিবার। তিনি একাই উপার্জন করেন। বাবাও একসময় রিকশা চালাতেন। বয়সের ভারে আর রিকশা চালাতে পারেন না। পরে খুব অল্প বয়সে মুকুলকে সংসার চালাতে রিকশার হ্যান্ডেল ধরতে হয়। ভাড়ায় রিকশা চালাতে দৈনিক আয়ের অর্ধেক মালিককেই দিতে হতো। তাঁর স্বপ্ন ছিল নিজের একটা রিকশা হবে। সংসারে ফিরবে একটিু স্বচ্ছলতা। কিন্তু ছেলে-মেয়ের পড়ার খরচ ও সংসারের চাহিদা মেটাতে সম্ভব হচ্ছিল না। সেই স্বপ্নকে সত্য হতে দেখতে পেয়ে কান্না থামছিল না পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী মোহাম্মদ মুকুলের। সেসই কান্না থেমে এবার মুখে হাসি ফুটেছে তাঁর। এ যেন অন্ধকারের মধ্যে একটি আলোর মশাল। নতুন রিকশা পেয়ে খুশি মুকুলের পরিবারও। রিকশা পেয়ে মুকুল বলে, আমি খুব খুশি। এখন থেকে আমিই এই রিকশার মালিক। রিকশা চালিয়ে পরিবারের মুখে এবার খাবার তুলে দিতে পারব।
আনন্দ পাশা-পাশি এক অন্যরকম অনুভূতি ছিল এসব উপকারভোগীদের মাঝে।

এ সময় সেলাইমেশিন ৭টি, হুইল চেয়ার ৫টি, অটোরিকশা ৫টি, ভ্যান ৫টিসহ অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
error: Content is protected !!